Close
Advertisment
✅ Welcome to LearningHomeBD
✅ Welcome to LearningHomeBD
✅ Welcome to LearningHomeBD
✅ Welcome to LearningHomeBD
✅ Welcome to LearningHomeBD
✅ Welcome to LearningHomeBD
✅ Welcome to LearningHomeBD
✅ Welcome to LearningHomeBD

Write A New Post

Your Active Email *

Post Title

Create A New Post *

× Subscribed users can only download for free ...
Step-01: Type your mail id and press on Subscribe Now!
Step-02: Go To your mail inbox and Confirm it's actually you !
Your Free Download Activated successfully !
Learn more..


Google Feedburner verify an email in your Email inbox Open the Inbox and verify Free Download will be activated, thank you !

JOB Exam Alert and News

Empty !
wait for new update !
Information :

Recent posts

View all
Aparajita Adhya Durga Puja Celebration HD Photos
Pavitra Lokesh Recent HD Photos丨Tamil Actress HD Photos
Face touch asmr with few asmr women | Sleeping Face Triggers 🖌️👋🏻 🤚🏻 🖐🏻 ✋🏻 🖖🏻 👌🏻 🤏🏻
2x Speed Scratching asmr by all together - Help You Sleeping by triggers
Scratching asmr by all together
100 Plus Triggers in 240 Seconds 🧑🏻‍🚀 Fast Aggresive Triggers
Face Brushing asmr 🙅🏻‍♀️ 🙅🏻 🙅🏻‍♂️ 🙆🏻‍♀️ 🙆🏻 Fast and Aggresive ASMR
Rain and thunderstorm from different place | Sleeping Maditation
Aggresive Fast & Furious Scarching ASMR Part_01
Aggresive Fast & Furious Scarching ASMR Part_02
Aggresive Fast & Furious Scarching ASMR Part_03
Aggresive Fast & Furious Scarching ASMR Part_04
100 triggers asmr in 1 min [Part - 04] Maditation On Sleeping
100 triggers asmr in 1 min [Part - 02] Maditation On Sleeping
100 triggers asmr in 1 min [Part - 03] Maditation On Sleeping
100 triggers asmr in 1 min [Part - 01] Maditation On Sleeping
Laptop or desktop ? Which would be better to buy ?
BRTA Driving License MCQ Exam Preparation PDF Files Download
BRTA Driving License writen Exam Preparation PDF Files Download
BRTA Driving License viva Exam Preparation PDF Files Download

EbraHim KhoLil > ‎Bankers Selection Guide(BSG)
Inspired Post:
হতাশ হয়েছি বহুবার কিন্তু দমে যায়নি বলেই আমি আজ পুলিশ ক্যাডার
পুলিশ অফিসার না -প্রথমে একটা চাকরি পাব, মা-বাবা খুশি হবে, বোনকে পড়াশোনা করাবো এটাই চেয়েছিলাম। এর বেশি কিছু না। ভয় আমারও হত, চাকরি হবে কি না। দ্রুত একটা চাকরি হোক, আমিও চাইতাম। সেটা হয় না, পরে বুঝলাম সময় লাগবেই। অনেকে বলত বাবা-মাকে আর কত কষ্ট দিবা বেসরকারি জবে ঢুকে পড়। বলতাম বাপ-মা টা আপনার না আমার, আমি জানি কষ্ট কি? মা বলত তুই এত লোভ করিস না ব্যাটা, মাসে ১০০০০-১৫০০০ টাকার একটা চাকরি হলেই চলবে।মনে মনে বলতাম কেউ বেটি দিবে না আর তোমার বেটিটারে কেউ নিয়ে যাবে না।আর স্টার জলসা মার্কা হলে তো, ফাস গায়া মেরে ইয়ার?
যে পরীক্ষা গুলোতে অংশগ্রহন করেছিলাম-
1. Primary exam two times prelim fail. রেজাল্ট বের হলে লজ্জায় বলতাম proxy মারতে গেছিলাম।
2. ২০১৫ সালের জানুয়ারি Janata Bank AEO (without preparation) Question দেখেই crash prelim fail.
3. SEQAEP দুই দুই বার নিল না আমাকে। কেঁদেছিলাম কারণ ছোটবোন SSC পাস করল, কিভাবে কলেজে ভর্তি করাবো আর পড়াশোনার খরচ দিব।
4. পরিবার পরিকল্পনা prelim fail.
5. BCSIR senior scintific officer viva(feb 2015) fail. Viva board খুব নাস্তানুবাদ করেছিল।খুব রাগ হয়েছিল । এখন মনে হয় সেটাই দরকার ছিল।
6. Janata bank AEO-IT written pass but Aptitude test fail. খুব কষ্ট হল। পাশের জন 30 second help করলে জব টা হয়ত বা হত।
7. Standard Bank viva-বলল ফুল মার্ক দিলেও জব হবে না। দেখি october (2017) মাসে appoinment letter পাঠাইসে রুমে পড়ে আছে।
8. Bangladesh Development Bank viva fail.(4-4-16) Viva বোর্ডে ঢুকেই Remand. রসায়নের ছাত্র ব্যাংকে কেন জব করবেন?? আমি বললাম স্যার বিজ্ঞানের ছাত্র ব্যাংকে প্রয়োজন আছে, তাছাড়া এটা তো রাস্ট্রীয় সিদ্ধান্ত।কিছুটা সান্ত হয়েছিল।কিন্তু আমি আরও অসান্ত হয়ে গেলাম।ভাবলাম written আরও ভালো করতে হবে।
9. NBR – 2015 viva fail. আনোয়ারা ম্যাডাম বলল 35th non cadre ওকে fail করাই দেন। মনে মনে বললাম বেতন তো সরকার দিবে, চাকরি টা দেন plz আর পারছি না।
10. দুদক AD prelim pass written attend করা হয়নি।
11. Bamgladesh bank AD, cash prelim pass written attend করা হয়নি।
12. RAKUB senior officer prelim fail. Very upset .
13. RAKUB officer viva(16-10-16) by Bangladesh Bank চুড়ান্ত ফলাফল Selected (6:20pm 22 may 2017)1st job বর্তমানে কর্মরত (dinajpur-setab ganj).
14. Circle Adjutant – চূড়ান্ত ফলাফল মেধাতালিকায় 12th out of 302.
15. 35th BCS prelim 08.03.15 (1st BCS) non cadre- NBR (Result may 2017)
16. 36th BCS written&viva খুব ভালো হয়েছিল – ASP 49th merit
17. 37th BCS 1st choice police viva attend করি নাই
Bangladesh Airforce two times 2015,2016 Red card-ISSB DP বলেছিল আপনার সব ঠিক কিন্তু নিব না BMA তে পারবেন না কঠিন training . তারপর 15 দিন মত মাথা কাজ করেনি। বাবা খুব কষ্ট পেয়েছিল।
হতাশ হয়েছি বহুবার কিন্তু দমে যায়নি বলেই আমি আজ পুলিশ ক্যাডার।
--------------------- কালেক্টেড।

Tauhidul Islam Duronto >>
Banking Career in Bangladesh (BCB)
#ভাইবা_অভিজ্ঞতাঃ
Combined 8 Banks/Financial Institutions (SO) under
Banker's Recruitment Committee
Board No-4
Serial - 10
Deputy Governor S K Sur Sir এর চেম্বার। যদিও তিনি উপস্থিত ছিলেন
না। চেয়ারম্যান স্যারসহ বোর্ড সদস্য ছিল পাঁচ জন।
এই প্রথম ভাইভা দিলাম যেখানে বুকে কাঁপুনি অনুভব করিনি। যেখানে অনেককে দেখলাম কোট টাই পড়ে ঘামছে। নোট খাতা, কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স পড়তে পড়তে চিন্তিত হয়ে পড়ছে। আপুদের দেখলাম টিস্যু দিয়ে বারবার মুখ মুছতে। যাইহোক ভাইবার ডাক পড়লে আলতো করে দরজা চাপ দিয়ে মাথা বাড়িয়ে দিলাম। 'আসসালামু আলাইকুম।' বলে সবার দিকে দৃষ্টি ফিরিয়ে আনলাম। উপস্থিত সবাইকে দেখে সমবয়সী মনে হলো।
'May I come in Sir?' আমি দাঁড়িয়ে রইলাম। চেয়ারম্যান স্যার কাগজ দেখছিলেন। মুখ তুলে আসতে বললেন। দাঁড়িয়ে আছি দেখে বসতে বললেন।
-'Thank you sir' বলে আসন নিলাম।
'আপনার নাম?'
-'মোঃ তৌহিদুল ইসলাম।'
'ভার্সিটি?'
-'Rajshahi University, Sir'
'Good, subject?'
-'Accounting & Information Systems, Sir'
'হল কোনটা?'
-'সৈয়দ আমীর আলী হল।' আমি তো ভাবলাম রুম নং কত ছিল সেটাও জিজ্ঞাসা করবে। তবে সে প্রশ্ন পেলাম না।
'Home District?'
-'টাংগাইল, স্যার।'
'টাংগাইলে আপনার বাসা কোথায়?'
-'স্যার, ভূঞাপুর।'
'আচ্ছা, রাজশাহীতে যাবার রাস্তা তো গিয়েছে টাংগাইল দিয়েই?'
-'জি স্যার, সড়ক পথ, রেলপথ দুটাই গিয়েছে। বঙ্গবন্ধু সেতু হয়ে রাজশাহী।'
'তবে তো আপনার জন্য সুবিধা হয়েছিল।' স্যার মন্তব্য করলেন না প্রশ্ন করলেন বুঝলাম না।
-'জী স্যার।'
'Why Tangail is famous for?'
-'প্রথমত টাংগাইলের বিখ্যাত চমচম। তাছাড়া টাংগাইলের তাঁতের শাড়িও বিখ্যাত।'
'টাংগাইলে দেখার মতো কী কী আছে? মানে দর্শনীয় স্থান?'
-'বঙ্গবন্ধু সেতু, মহেড়া জমিদার বাড়ি, মধুপুরের জাতীয় উদ্যান, আরো ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কিছু জমিদার বাড়ি।'
'আপনি তো সন্তোষ এর কথা বললেন না। তাছাড়া আতিয়া জামে মসজিদ আছে।'
আরেক স্যার যোগ করলেন, 'ভারতেশ্বরী হোমস, কুমুদিনী হাসপাতাল, করটিয়া জমিদার বাড়ি এইসব তো বললেন না?'
-'স্যার বর্তমানে মানুষ ঘুরতে যায় মহেড়া জমিদার বাড়ি, পুনঃনির্মাণের ফলে সবকিছু ঝকঝকে আছে।'
'শুনেছিলাম জমিদার বাড়িটা পুলিশ ব্যবহার করছে?'
-'জী স্যার, পুলিশ ট্রেইনিং সেন্টার হিসাবে ব্যবহার হচ্ছে।'
'আপনি Cash Flow Statement এর নাম শুনেছেন?'
-'জী, স্যার।'
'Free Cash Flow Statement কি?'
আমি ভাবতে শুরু করলাম কিন্তু কম সময়ে উত্তর গোছাতে পারলাম না।
'FCFS' স্যার আবারো বললেন।
মনে মনে ভাবলাম ডাক্তারদের FCPS জানি আর একাউন্টিং পড়ে FCFS পারছি না!
-'Sorry Sir. Indirect Cash Flow, Direct Cash Flow পারব।
কিন্তু এই টার্মটা আমি ব্যাখ্যা করতে পারব না।'
'কী বলছেন?' চেয়ারম্যান স্যার বিষ্মিত হলেন।'
-'Sir frankly speaking, it is unknown to me'
'Cash flow cycle and operating cycle সম্পর্কে বলুন' পাশ থেকে এক স্যার প্রশ্ন করলেন।
-'Cash flow cycle হচ্ছে কাঁচামাল ক্রয় থেকে শুরু করে, উৎপাদন, বিক্রয়,
দেনাদারের কাছ থেকে নগদ আদায় এর চক্রাকার প্রক্রিয়া।
আর operating cycle সাধারণত পণ্য উৎপাদন প্রক্রিয়ার সাথে জড়িত। ব্যাখ্যা করে বলতে গেলে...' স্যার থামিয়ে দিলেন।
'দুটোর মধ্যে কোনটার Time Duration বেশি?'
-'স্যার Cash flow cycle এর'
'আপনার first choice কোন ব্যাংক?'
-'স্যার, সোনালি ব্যাংক লিমিটেড।' মনে মনে ভাবলাম সবগুলোর চয়েস অনুসারে
নাম বলতে বলে কিনা। গুছিয়ে নিলাম নিজেকে। কিন্তু স্যার কমন প্রশ্ন করে ফেললেন। 'সোনালি ব্যাংক এর কাজ কী?'
-'যেহেতু সোনালি ব্যাংক একটি কমার্সিয়াল ব্যাংক, এর মূল কাজ আমানত সংগ্রহ ও ঋণ প্রদান। তাছাড়া সরকারি বিভিন্ন পলিসি বাস্তবায়ন করে থাকে।'
'যেমন?' অন্য এক স্যার শোনার ইচ্ছা প্রকাশ করলেন।
-'বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, যেখানে বাংলাদেশ ব্যাংকের শাখা নেই সেখানে তাদের হয়ে কাজ করা।'
'যেমন?' আবারো যেমন বললেন।
-'Clearing এ সাহায্য করা। Cash remittance করা, চালানের অর্থ সংগ্রহ করা।'
'স্প্রেড এর নাম শুনেছেন?' চেয়ারম্যান স্যার প্রশ্ন করলেন।
-'জী স্যার, ব্যাংকের ক্ষেত্রে স্প্রেড হলো Interest Income থেকে Interest expenses এর পার্থক্য।'
স্যার চুপ করে রইলেন। মনে হয় সিন্ধান্ত নিতে পারছেন না আমাকে নিয়ে। হয়তো FCFS এর উত্তর দিতে পারি নি তাই।
আমি যোগ করলাম, 'ধরি স্যার, আমি ঋণের লাভ নিচ্ছি তের শতাংশ হারে, আর আমানতের জন্য ব্যয় করতে হচ্ছে আট শতাংশ। এতে স্প্রেড হচ্ছে পাঁচ শতাংশ।'
'আর, কারো কোন প্রশ্ন?'
চেয়ারম্যান স্যার সবার দিকে তাকালেন। আমিও সবার দিকে তাকালাম। আমি প্রশ্ন আশা করছি। কিন্তু কেউ করলো না।
'আপনি আসুন।'
-'Thank you sir, আসসালামু আলাইকুম।' বলে সবার দিকে এক পলক তাকিয়ে বেরিয়ে এলাম স্বাভাবিক হৃদপিণ্ডের গতি নিয়ে।

আসিফ হাসান শিমুল >> ‎Banking Career in Bangladesh (BCB)>>
শুরু থেকেই শুরু হোক ব্যাংক প্রিপারেশনের পথ চলা!জীবনে সফলতার জন্য কোন শর্ট-কাট রাস্তা নেই।স্বস্তার কিন্তু তিন অবস্থা তাই শর্ট -কাট রাস্তা খুঁজলে ফলাফলটাও তেমনি আসবে।ব্যংকের প্রিপারেশন তেমন আহামরি কিছুনা বাট আপনি কতটা বুঝে পড়তে পারেন সেটাই মূল কথা।কোন কিছুকেই হালকাভাবে নেয়ার সুযোগ নেই।যাই পড়বেন খুব ভালভাবে বুঝে পড়ুন।নির্দিষ্ট একটি সিলেবাস করে ফেলুন যাতে ধারাবাহিকভাবে আপনি সিলেবাসটা কম্পলিট করতে পারেন!যে বিষয়ে আপনার দুর্বলতা বেশি সেই সাব্জকেটকে বেশি গুরত্ত দিন।
ম্যাথ আর ইংরেজিতে আপনি ভাল মানে আপনি ব্যাংকের জন্য ৭০% এগিয়ে গেলেন।তবে একেকজনের শক্তি আর সামর্থ্য এক না তাই আপনি ভাল বুঝবেন কোন সাব্জকেটকে বেশি গুরত্ত দিবেন!মানুষের জীবেন সফল হবার জন্য আরও কিছু বিষয় থাকে।যেমনঃ
১।সবার সাথে ভাল ব্যাবহার করা এতে মন ভাল থাকে যার ফলে যেকোনো কাজে আপনার ভাল লাগা কাজ করবে।
২।কাউকে কখনো ইগনোর করবেননা,এতে আপনাকেও একই পরিস্থির সম্মুখীন হতে হবে।
৩।যখন যে কাজটি করছেন ঠিক সেই কাজটিকেই গুরত্ত দিন।
৪।সময় এবং মানুষ উভয়কেই গুরত্ত দিন।
৫।বিপদে পেশেন্স রাখুন কারন বিপদ সাময়িক।
৬।হতাশাগ্রস্থ মানুষকে এড়িয়ে চলুন!
আগামী পোস্ট এ ব্যাংকের সিলেবাস এবং বইয়ের লিস্ট দেয়ার চেষ্টা থাকবে।
সিনিয়র অফিসার,
বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক।

Mahfuz Jami >> ‎Bangladesh Bank Exam Aid (BBEA) >>
সবচেয়ে খারাপ ভাইভা মনে হয় আমিই দিলাম। যাই হোক আসল কথায় আসি।
বিষয়ঃ ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং ভাইভা বোর্ডঃ আব্দুর রহিম স্যার
ঢুকে সালাম দিলাম, বসার অনুমতি দিল পাশের একজন স্যার।
আমি ধন্যবাদ দিয়ে বসার আগেই রহিম স্যার প্রচন্ড বিরক্ত হয়ে জিজ্ঞেস করল " আচ্ছা তোমার ফিল্ডে কি জব নাই? এখানে আসছো কেন? "
আমিঃ (ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে) জি স্যার। বুঝলাম না।
স্যারঃ বললাম তোমার ইঞ্জিনিয়ারিং এর জব ফিল্ড বাদ দিয়ে এখানে আসছো কেন?
আমিঃ স্যার, আসলে আমাদের ফিল্ডে চাকুরির সুযোগ কম। (থতমত খেয়ে বেশি কিছু বলার ইচ্ছা থাকলেও আর বললাম না)
স্যারঃ আচ্ছা বল, হোয়াট ইজ ইঞ্জিনিয়ারিং? আবার বাংলায় একই প্রশ্ন ইঞ্জিনিয়ারিং কাকে বলে বল।
আমিঃ বাংলায় আস্তে আস্তে বললাম।
ডান পাশে বসা স্যারঃ উদাহরণ দিয়ে বুঝাও
আমিঃ একটা উদাহরণ দিয়ে বললাম।
স্যারঃ আচ্ছা ফিনান্সিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং নাম শুনেছ?
আমিঃ জি স্যার শুনেছি, আমাদের ইকোনমিক্স এর একটা কোর্সে ছিল। (মনে মনে বলি ওইসব কিছুই তো মনে নাই)
স্যারঃ বল তাহলে কি?
আমিঃ বানিয়ে বানিয়ে ফিনান্সের সাথে সম্পর্ক হয় কিছু একটা বলে দিলাম।
স্যারঃ (মাথা নাড়তে লাগলেন) হয়নি।
রহিম স্যারঃ আচ্ছা তুমি তো প্রকৌশল পড়েছ। বল প্রকৌশল আর প্রযুক্তির মধ্যে পার্থক্য কি?
আমিঃ (খানিকক্ষণ চিন্তা করে বললাম) সরি স্যার।
রহিম স্যার এবার হাসতে হাসতে অন্যদের বলতেছে, পড়ছে ইঞ্জিনিয়ারিং, আবার ব্যাংকে চাকুরির ভাইভা দিতে আসছে, (আমার দিকে তাকিয়ে), তাও এসব কি ব্যাংকে জব করবা, কি যেন নাম, পল্লী সঞ্চয়, আন্সার ভিডিপি, আমি বললাম জি স্যার।
রহিম স্যারঃ তো তুমি ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ে এইসব ব্যাংকে চাকুরি করবা এটা কেমন কথা, অন্য সব ভালো ব্যাংক হলেও একটা কথা ছিল। এটা কি তোমার স্ট্যাটাস এর সাথে যায়? হইছো ইঞ্জিনিয়ার, আর চাকুরি করবা পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক। হুম একবারে হইছে তাইলে। বলেই হাসা শুরু দিল।
আমিঃ(পুরাই ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে কিছুক্ষণ চুপচাপ বসে ভাবলাম আমি ভাইভা দিতে এসে একি বিপদে পরলাম, পরে অনেক কষ্টে সামলে বললাম) স্যার আমার ব্যাংকে চাকুরি করার খুবই ইচ্ছা।
স্যারঃ খুবই ইচ্ছা, আচ্ছা আচ্ছা ভালো। তাহলে বল হোয়াট ইজ ব্যাংকিং। ব্যাংকিং কাকে বলে?
আমিঃ( আমার তখনো ভ্যাবাচ্যাকা ভাব কাটেনি, আমতা আমতা করে বলতে লাগলাম বাংলায়) গ্রাহকদের থেকে আমনত সংগ্রহ করে এবং ঋণদাতাদের ঋণ প্রদান করে যে লাভ করার মাধ্যমে ইন্সটিটিউট পরিচালিত হয় তাদের কার্যক্রম হল ব্যাংকিং।
স্যারঃ জিব্রাল্টার প্রণালীর নাম শুনেছ
আমিঃ জি স্যার।
স্যারঃ বল এটা কি কি পৃথক করেছে।
আমিঃ স্যার এশিয়া থেকে আফ্রিকাকে ( ভুল বলেছি, হবে আফ্রিকা থেকে ইউরোপ কে)
স্যারঃ এশিয়া থেকে আফ্রিকা, তাহলে কোন কোন জায়গা দিয়ে গেছে।
আমিঃ(মুখস্থ ছিল) স্যার মরক্কো আর স্পেন কে আলাদা করেছে।
স্যারঃ তাহলে মরক্কো কোথায়
আমিঃ স্যার আফ্রিকা।
স্যারঃ তাহলে এশিয়া থেকে কিভাবে পৃথক হল।
আমিঃ সরি স্যার, পারবোনা।
স্যারঃ ব্যাংকে চাকুরি করতে ইচ্ছা, তাহলে এসব তো শিখে আসতে হবে তাইনা, ব্যাংকে যেহেতু চাকুরি করবা এসব জানতে হবে বুঝছ।
আমিঃ জি স্যার বুঝেছি।
তারপর আরো কিছু গ্রামের বাড়ি সংক্রান্ত ২,৩ টা প্রশ্ন করে বলল ঠিক আছে যাও তাহলে।
Recommended for Senior Officer of "Palli Sanchay Bank"

মশিউর রহমান মিলন >> ‎Banking Career in Bangladesh (BCB)>> অনেকেই লিখিত পরীক্ষায় কি কি টপিকের উপর প্রশ্ন হয়ে থাকে জানতে চেয়েছেন।সেজন্য লিখিত পরীক্ষার সিলেবাস নিয়ে আলোচনা করা যাক।বর্তমান সময়ে লিখিত পরীক্ষা মোট ২০০ নম্বরের(বিএসসি'র অধীনে নিয়োগ পরীক্ষায়) হয়ে থাকে।অন্যান্য বেসরকারি ব্যাংকে প্রিলিমিনারী পরীক্ষার সাথে ৩০/৪০/৫০ অথবা আরো কম/বেশি নাম্বারের লিখিত পরীক্ষা হয়ে থাকে।
বাংলা ফোকাস রাইটিং -২৫
ইংরেজি ফোকাস রাইটিং -২৫
বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ-১৫
ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ-১৫
বাংলা এপ্লিকেশন -১৫
ইংরেজি এপ্লিকেশন -১৫
ইংরেজি রিডিং কমপ্রিহেনশন -২০
গাণিতিক সমস্যা সমাধান-৭০
লিখিত পরিক্ষার মার্ক ডিস্ট্রিবিউশন সাধারণত এরকম হয়ে থাকে। তবে ফ্যাকাল্টি ভেদে একটু তারতম্য হতে পারে।
প্রথমেই বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ নিয়ে আসুন এনালাইসিস করি।বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ অংশে কোন একটা টপিক নিয়ে ৮/১০/১২টা বাংলা লাইন থাকবে যেটার ইংরেজি অনুবাদ করতে হবে।সব সময় চেষ্টা করবেন আক্ষরিক অনুবাদ না করে ভাবানুবাদ করতে।মূল বিষয় ঠিক রেখে ছোট ছোট বাক্যে সাবলীলভাবে ইংরেজিতে অনুবাদ করবেন।খুব কঠিন কঠিন ইংরেজি শব্দ ব্যবহার করে যে অনুবাদ করতে হবে তা কিন্তু নয়, আপনার পরিচিত ইংরেজি শব্দ ব্যবহার করেই সুন্দরভাবে গুছিয়ে অনুবাদ করুন।সেই সাথে ইকনমিক, রাজনৈতিক, সামাজিক, ব্যাংকিং এবং গ্লোবাল বিষয়গুলোর ইংরেজি টার্ম মুখস্থ রাখবেন।অনুবাদের সময় এই টার্মগুলোর ব্যবহার করবেন।সেই সাথে নিজের ভোকাবুলারিও নিয়মিত সমৃদ্ধ করবেন।অনেক সময় পরীক্ষার হলে পরিচিত বাংলার ইংরেজি শব্দ মনে আসবে না।পরীক্ষার হল থেকে বের হয়ে আফসোস করবেন।
সাইফুরস এর ট্রান্সলেশন এন্ড রাইটিং, মিয়া মোহাম্মাদ সেলিম ভাইয়ের অনুবাদবিদ্যা, মহিদ'স মাসিক সম্পাদকীয় সমাচার বইগুলো থেকে অনুবাদ অনুশীলন করতে পারেন।একটা কথা মনে রাখবেন অনুবাদ জিনিসটা ২/৪দিনে শেখার ব্যাপার নয়, হাতে সময় নিয়ে নিয়মিত অনুশীলনের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করুন।বাজারে প্রচলিত প্রায় সবগুলো বই ই ভালো, আমরাই ভালোমতো শেখার চেষ্টা করি না।
ঠিক একই ভাবে ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করবেন।বড় বড় ইংরেজি বাক্যকে ছোট ছোট অংশে ভেঙ্গে বাংলায় লিখবেন।কোন ইংরেজি শব্দ না বুঝলে সেই লাইনের আগের এবং পরের লাইন থেকে একটা প্রাসঙ্গিক বাংলা শব্দ ব্যবহার করবেন।উপরে উল্লিখিত বইগুলোতে কিভাবে বড় বড় ইংরেজি বাক্য ভেঙ্গে ভেঙ্গে অনুবাদ করতে হয় সেসবের বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেওয়া আছে।আশা করি উপকৃত হবেন।
বাংলা এবং ইংরেজি এপ্লিকেশন এর জন্য বিগত ২/৩ বছরে বিভিন্ন সরকারী + বেসরকারি ব্যাংকের লিখিত পরীক্ষায় আসা ফরম্যাটগুলো খাতায় নোট করে রাখুন।সাথে রিসেন্ট যতগুলো ব্যাংকের লিখিত পরীক্ষা হয়েছে সেসব পরীক্ষায় আসা এপ্লিকেশনগুলোর ফরম্যাট সংগ্রহ করুন।ফরম্যাট ভালোমতো মাথায় গেঁথে রাখুন।এপ্লিকেশনে মূলত ফরম্যাট ঠিক আছে কিনা সেই বিষয়টা খেয়াল করা হয়।তবুও পরিক্ষার আগে পুরো এপ্লিকেশন ২/১ বার বাসায় লিখে লিখে প্রাকটিস করে যাবেন।
ইংরেজি রিডিং কমপ্রিহেনশনে কোন একটা বিষয়ের উপর অল্প কিছু আলোচনা থাকে।তারপর নিচে ৪/৫ টা প্রশ্ন থাকে সেই আলোচনা থেকে।আপনাকে সেই আলোচনা থেকে পড়ে প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে।তবে উত্তরে কখনোই কমপ্রিহেনশন থেকে হুবহু লাইন তুলে দিবেন না।সেই কথাগুলোই নিজের ভাষায় ২/৩ লাইনে উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবেন। Pearson Publications এর Objective English বইয়ে এবং ফজলুল হকের English for Competitive Exam বইয়ে রিডিং কমপ্রিহেনশন থেকে কিভাবে উত্তর করবেন বিস্তারিত আলোচনা করা আছে।এছাড়াও গাইড থেকে বিগত বছরের রিডিং কমপ্রিহেনশন সমাধান করলেই একটা ভালো ধারনা পাবেন।
আমার স্বল্প জ্ঞান আর অভিজ্ঞতার আলোকে যেভাবে প্রস্তুতি নিলে আশা করা যায় লিখিত পরীক্ষায় ভালো করবেন সেভাবেই শেয়ার করেছি।

Sumon Howlader > ‎Bangladesh Bank Exam Aid (BBEA)
এসএসসি ৩.৮৮(২০০৩)
এইচএসসি ৪.৩০(২০০৬)
অনার্স-মাস্টার্স ২য় বিভাগ(কেমিস্ট্রি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়)
একটা সাধারণ শিক্ষার্থীর একাডেমিক রেসাল্ট।
২০১৫ সালের জানুয়ারী মাস থেকে চাকুরির জন্য এক্সাম দেওয়া শুরু হয়।
ব্যর্থতার ইতিহাসঃ
janata aeo teller (viva fail )
Pubali officer (viva fail)
Meghna petroleum officer (viva fail)
Railway asm (viva fail)
Agrani SO (viva fail)
Housebuilding finance Corporation officer(viva fail)
Bdbl SO (viva fail)
agrani cash (viva fail)
Janata aeo RC (viva fail)
সফলতাঃ
Rupali cash (Selected)
Sonali officer (selected)
Sonali SO (selected)
ভাইভাতে অংশগ্রহণ করিনি (একই গ্রেডের জব হওয়ার কারনে)ঃ
Sonali cash
Combined officer general
পরবর্তী রেসাল্ট বাকিঃ
Cobined SO
Bcic (assistant chemist)
অনেকগুলো রিটেন ফেল করেছি জিবনে। প্রিলি তো আরো বেশী। বয়স শেষ হওয়ার পর রূপালী ব্যাংকে জয়েন করেছি জানুয়ারী তে।
এই পোষ্টটা আমি কয়টা জব পেয়েছি সেইটা দেখানোর জন্য না। এটা হলো তাদের জন্য যারা নিজের রেসাল্ট, ভার্সিটি আর বয়স নিয়ে শংকা প্রকাশ করেন তাদের জন্য।
মাস্টার্স এর রেসাল্ট যেদিন দিলো সেদিন জাফর ইকবাল ভাই ( এই গ্রুপের অ্যাডমিন) কে নক করে বললাম "ভাই এই রেসাল্ট দিয়ে কিছু হবে?" উনি বললেন "লেগে থাকেন ভাই। হবে।" ভাই এর কথা গুলো এখনো মনে আছে আমার।
নিজের উপর আস্থা রাখুন। কোটা, টাকা, সুপারিশ এগুলো বাদেও আপনি ভালো জবই পাবেন।
ধন্যবাদ।

প্রচুর টেক্সট পেয়েছি বিগত কয়েক দিনে। কিন্তু সত্যি বলতে আমি ইংরেজির চাইতে গণিতটাই ভাল পারি। তাই আমি চাই গনিত নিয়েই কিছু কথা বলতে। আমি আজকে চেষ্টা করব তাই গনিতটাকে একটা ফ্রেমে নিয়ে আসতে। আসলে ব্যাংকের প্রিলির প্রশ্ন বিভিন্ন ওয়েব সাইট থেকে হয়, তাই অনেকেই বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে ম্যাথ করে প্রশ্ন কমন পাওয়ার একটা চিন্তা দেখা যায়। কিন্তু বিষয়টা একবার ভাবুন তো। ম্যাথ প্রশ্ন কমন পাওয়ার চিন্তা আর নিজের হাতে নিজের পায়ে কুড়াল মারা কিন্তু একই কথা। আমি নিজেও ম্যাথ কমন পড়বে এই চিন্ত কখনই করি না। সোনালী ব্যাংক সিনিয়র অফিসার, ৫ ব্যাংক অফিসার, ৮ ব্যাংক সিনিয়র অফিসার, প্রাইম ব্যাংক এমটিও সবগুলোতেই আমি দেখেছি, বিভিন্ন ওয়েব সাইট থেকে প্রশ্ন কমন আসছে। কিন্তু আমি প্রেফার করতাম কেবল একটি বই। আর তা হল আর এস আগারওয়াল। এত ম্যাথ আছে যে পরলেও শেষ হয় না। আর এর পর আর তেমন কিছু লাগেও না। ভালো করে পড়লে রিটেন ম্যাথের প্রস্তুতিও হয়ে যায়। এটার বাইরে আর তেমন কিছু লাগেও না। এই বইয়ে ম্যাথ আছে প্রায় ৬০০০+ কিন্তু সব ম্যাথ করার দরকার নেই। মোটামুটি ২৫০০+ ম্যাথ করলেই আপনার হয়ে যাবে। আমি একটি ফাইল যোগ করে দিয়েছি পোষ্ট এর সাথে, এই ফাইলটি বানিয়েছিলাম প্রস্তুতির সময়। এখানে কোন চ্যাপ্টারের কোন ম্যাথ করতে হবে, তা দেয়া আছে। আপনি কষ্ট করে এই সাজেশন অনুসারে ম্যাথ করুন। মজার ব্যাপার হল এই বই থেকে ম্যাথ করলে আপনার মোটামুটি বিসিএস এর ৫০ মার্কের রিটেন ম্যাথের ৪০ এর প্রস্তুতি হয়ে যাবে। তবে এই বইটি ইংরেজিতে দেয়া। তাই একটু সময় লাগতে পারে যারা কিনা ইংরেজিতে একটু দুর্বল। কিন্তু সময় নিয়ে করে ফেলতে পারলে আপনাকে কে আটকায়। আর এই বইটি আয়ত্ত্বে আনতে পারলে যদি সময় পান, তবে আপনি কেবল মাত্র gmatclub থেকে কিছু ৭০০ লেভেল এর ম্যাথ দেখতে পারেন অর্থাৎ খুব ম্যাথ দেখতে পারেন। এর বেশী কিছু লাগে না আমি মনে করি। ৭০০ লেভেলের ম্যাথের একটি বই ও পাবেন মার্কেটে। তবে ম্যাথ করার সময় নিচের বিষয় গুলো ভাল করে খেয়াল করবেন।
১। কোনভাবেই শর্টকাটের দিকে যাবেন না।
২। হাতে কলমে ম্যাথ করবেন।
৩। ক্যালকুলেটর ব্যবহার থেকে দূরে থাকবেন।
৪। সুদকষার ম্যাথ গুলোর ক্যালকুলেশন হাতে কলমে করা আয়ত্ব করে নিতে হবে।
৫। ত্রিকোণমিতির মানগুলো ভাল করে মুখস্ত করে নিন।
৬। যদি সূত্র প্রয়োগ করতেই চান, তবে সূত্রটি খুব ভালকরে বুঝে নিতে হবে।
৭। ম্যাথ দেখে যদি মনে হয় এটা তো পারিই। তবে সবার আগে এটিই করবেন। কারণ হল, দেখে মনে হওয়া যে আমি পারি, আর সমধান করে বলতে পারা যে আমি পারি, কথা দুইটি একেবারে ভিন্ন কথা। অনেক এক্সপার্ট হোঁচট খায় এই একটা কারণে।
কুহেলিকা সেন
Selected for the post of Management Trainee, Prime Bank Ltd.
Senior officer, Sonali Bank, written selected.
Officer, Combined 5 Bank, written selected.
Senior officer, 8 Bank, written selected.

ব্যাংক প্রিপারেশন..
কম সময়ে ও কম পরিশ্রমে সফল হবার চেষ্টা।
আমি যেমনটা করেছিলাম।
প্রিলির জন্য
১. আরিফুর রহমান Govt Bank Job
২. প্রিভিয়ার ইয়ারের সকল ভোকাবুলারি উইথ সিনোনিম ও এনটোনিম। পাশাপাশি সাইফুরস বইটা। কারণ ইংরেজি বেশির ভাগ ভোকাবুলারি বেসড প্রশ্ন হয়। ভোকাবুলারি আমি নোট করে বার বার পড়তাম। যেটা পড়বেন সেটা যেন মনে থাকে সেভাবে পড়তে হবে। বেশি পড়লাম মনে রাখতে পারলাম না। এমন যেন না হয়। ভোকাবুলারি ব্যাংকের জন্য মেইন।
৩. Competitive Exam বইটা গ্রামারের জন্য।
৪. ম্যাথ মেক্সিমাম টাইম বেশি করতাম না। প্রিলির ম্যাথ পারা যেত। তবে আগারওয়ালের বইটা করলে প্রিলি ও রিটেন কাভার হবার কথা।
৫. সাধারণ জ্ঞান এর জন্য Mp3 + পরীক্ষা যে মাসে সে মাস সহ আগের তিন মাসের কারেন্ট ওয়ার্ল্ড বা affairs.
৬. কম্পিউটার এর জন্য ইজি কম্পিউটার। এছাড়াও নেট বেসড কিছু ওয়েবসাইট আছে তা থেকে পড়তে পারেন।
অন্যদিন রিটেন নিয়ে লিখব যদি আপনারা মনে করেন আপনাদের উপকার হবে।
মোঃ সাইফুল ইসলাম
৩৭ ট্রেইনি ক্যাডেট সাব ইন্সপেক্টর
Recommended Sonali Bank Officer (General)

Mofakharul Islam Nayon > ‎Banking Career in Bangladesh (BCB)>>
৩০ বছর পূর্ণ হবার শেষ দিনটিতেই কাংখিত চাকরী প্রাপ্তি......
বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে শুরু করে সকল রাষ্টায়ত্ব ব্যাংকে যত প্রিলি দিয়েছি, তার সবগুলুতেই পাস! কিন্তু লিখিত পরীক্ষায় সব জায়গায় ফেইল! ইভেন বিসিএস এ ও ২ বার লিখিত ফেইল! তারপর ও হাল না ছেড়ে এগিয়ে চলা ছিল আমার! বারবার লিখিত ফেইল আমাকে বিমর্ষ করে তুলতো! তা সত্ত্বেও পুনরায় নতুন করে শুরু করা ছিল আমার নেশা! মাস্টার্স রেজাল্ট প্রকাশের আগেই বাংলাদেশ রেশম উন্নয়ন বোর্ডে একটা জব হয়ে যায়! তারপর ও থেমে না থেকে এগিয়ে চলা ছিল অবিরাম! যার ফলস্বরুপ আমার বদলি খাগড়াছড়ি! তারপর ও থেমে যাই নি! খাগড়াছড়ি থেকে প্রতি শুক্রবার পরীক্ষা দিয়েছি! আর প্রিলি পাস লিখিত ফেইল! যথাযথভাবেই ইংলিশে দূর্বল! কিন্তু ম্যাথ করলেই পারতাম! সেটাকেই পূজি করে এগিয়ে চলতে থাকি! বাজারের এমন কোন ম্যাথ বই নেই যা সমাধান করতে চেষ্টা করিনি! কখনো পেড়েছি আবার কখনো পাড়িনি! তবে থেকে যাই নি! ম্যাথ ট কে সংগী করে এগিয়ে চলেছি! আর ইংলিশ মোটামোটি হয়েছে! তবে ভাল কোন কিছুই পারতাম না! আর এভাবেই নভেম্বর/2017 বয়স ৩০ ছুয়ে গেল! সে মাসেই কাংখিত ফলাফল শুনতে পারলাম! তখন ছিলাম খাগড়াছড়ি চেংগী নদীর ওপারে! অসাধারণ এক অনুভূতি ছিল সে মুহুর্তটা!
এ ঘটনা আমাকে যা শিখিয়েছে....
১. লেগে থাকতে হবে শেষ পর্যন্ত!!
২. নিজের প্রতি বিশ্বাস রাখতে হবে!
৩. একটা পরীক্ষা নিজের মত একদিন ঠিক ই হবে! সেদিনটার অপেক্ষায় থাকতে হবে!
৪. আমি সব পারবো না এটাই স্বাভাবিক! কিন্তু আমি যা পারি তা দিয়ে বাধা উতড়ানোর দিনটার জন্যে অপেক্ষা করতে হবে!
৫. আমি এম.এস ওয়ার্ড, এক্সেল খুব ই ভাল পারতাম, যা ব্যাবহারিকে আমাকে অনেক বেশি এগিয়ে দিয়েছে! ৫০ এ ৫০!!
৬. নিজের যা আছে তার প্রয়োগ সব জায়গায় হবে না, তবে কখন কোথায় হবে তার জন্যে ধৈর্যের সাথে অপেক্ষা অবশ্যই করতে হবে!
৬. রেজাল্ট, প্রতিষ্ঠান এ প্রভাব এর কথা না ভাবাই ভালো!
সবশেষে বলা যায় নিজের জন্যে একটা দিন অবশ্যই আসবে! আর সে দিনটা ই হবে নিজেকে প্রমাণ করার মোক্ষম সময়!
অফিসার (আইটি)
সোনালী ব্যাংক লিমিটেড
কুলাউড়া শাখা, মৌলভীবাজার, সিলেট!!

বোর্ড চেয়ারম্যান - লায়লা বিলকিস ম্যাম (ED) টোটাল বোর্ড মেম্বার - ৩ জন
সময়- ৮-১০ মিনিট
সাবিজেক্ট- ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং
ম্যাম- নাম, উইনিভার্সিটি, সাবজেক্ট
আমি- ans
ম্যাম- ফিন্যান্স কি?
আমি- ans ম্যাম- কস্ট অফ ক্যাপিটাল কি?
আমি- ans ম্যাম- purchasing power parity কি? give Example
আমি- ans
বোর্ড- IRR VS NPV
আমি- ans বোর্ড- অর্থনীতিতে নোবেল কে কে পাইছে?
আমি- ans
বোর্ড- Balance of Payment?
আমি- ans
বোর্ড- টোটাল FDI কত এখন?
আমি- ans
বোর্ড- আগে কোনো রেজাল্ট পেন্ডিং আছি কিনা
আমি- ans
বোর্ড- কস্ট অফ ফান্ড কি?
আমি- ans
বোর্ড- Reatined Earning?
আমি- ans
ম্যাম- ওকে আসতে পার এখন।
আমি- সালাম দিয়ে বিদায় নিলাম
সবার জন্য শুভকামনা।

ভাই আপনি সোনালী ব্যাংকে ২ টা সরকারি চাকরি পেয়েছেন,কিভাবে পড়লে ব্যাংকে চাকরি পাবো?
- প্রথম কথা, আমি ব্যাংকের জন্য পড়িনি৷ আগেও বিসিএসের জন্য পড়তাম, এখনো বিসিএসের জন্যই পড়ি। আমার মতো অনেকেই বলে থাকেন, বিসিএসের প্রস্তুতি নিলে তার কোথাও না কোথাও সরকারি চাকরি হবেই আশা করা যায়।
- চাকরি পেতে হলে ম্যাথ আর ইংলিশে বস হতে হবে,এখানে কোন বিকল্প নাই।
- ম্যাথ না পারলে ক্লাস ১ /২ শ্রেনী থেকে শুরু করুন,নো অলটারনেটিভ!
-ইংলিশের জন্য ভোকাবুলারি পড়ুন প্রচুর,গ্রামার কম!
- কারো সাজেশন এর অপেক্ষায় না থেকে কিছু প্রিভিয়াস প্রশ্ন দেখুন, পড়ুন৷ফেসবুক চালান তবে আগে কোনটা গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা আপনার।

This POST Admin- অফিসার(ক্যাশ) ২০১৯ থেকে কর্মরত
অফিসার(জেনারেল) ২০২০ সালে সুপারিশ প্রাপ্ত
সোনালী ব্যাংক লিমিটেড।
এন্ড এট লাস্ট-
বৈধভাবে অনেক টাকার মালিক হতে চাইলে অন্যান্য সরকারি চাকরির চেয়ে সরকারি ব্যাংকের ব্যাংকার হওয়া বেটার!

কখনোই স্বপ্ন ছিল না যে সরকারি চাকরি করব। আমার কাছে ভাল প্রাইভেট প্রতিষ্ঠান বা দেশের বাইরে যাওয়াটাই স্বপ্ন ছিল। কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন ছিল। একটা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৬ বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং কমপ্লিট করে রিনিউবল এনার্জি টেকনোলজিতে মাস্টার্স কম্পলিট করলাম ঢাবি থেকে। এর মাঝে টুকটাক কিছু জব হলেও চাকরির বাজারের বেহাল দশা দেখে হতাশই হতে হল। মাস্টার্সের শেষের দিকে জয়েন করলাম BNDC Project (Bangladesh National Data Center)-এ। একটা থার্ড পার্টির অধিনে ছিলাম, সরাসরি রিক্রুটেড ছিলাম না। এতে করে কাজ একই হলেও সরাসরি রিক্রুটেডদের সাথে আমাদের সুযোগ-সুবিধার বৈষম্য ছিল বিস্তর। সকাল ৮টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত সাইটেই থাকতে হত। অনেক সময় সাইট থেকে বের হয়ে রিকশা পেতাম না, হেটেই চলে আসতে হত বাসায়। এমতাবস্থায়, চাকরির অনেক প্রয়োজন থাকা সত্বেও চাকরিটা ছেড়ে দিলাম। মাস্টার্স যেহেতু শেষ ঠিক করলাম এবার বাইরে যাবার চেষ্টা করতে হবে, বাসায় জানালাম। বাবা প্রায়ই অসুস্থ থাকেন। আমাকে বাইরে যাতে দিতে চাননা। বললেন, সরকারি চাকরিতে ১/২ বছর চেষ্টা করে দেখ প্রথমে, যদি কিছু নাহয় তাহলে বাইরে চলে যাইস। ছোট বোনের অনুপ্রেরনায় ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারী থেকে শুরু করলাম জব প্রিপারেশন।

অনেক ভেবে ঠিক করলাম ব্যাংকের প্রিপারেশন নেব। কারন ম্যাথ আমার ভাল লাগত, আর ব্যাংকে ম্যাথ বেশ এগিয়ে রাখে। গ্রুপে পোস্ট দিয়ে বুঝলাম ২০১৬/১৭ সালের কিছু এক্সামের পরীক্ষা পেন্ডিং আছে এবং ৪/৫ মাসের মধ্যে হয়তো পরীক্ষা শুরু হয়ে যাবে। প্রিপারেশন শুরু করলাম। প্রতিদিন দুইটা করে প্রিলি প্রশ্ন সলভ করা, দুই সেট রিটেন ম্যাথ সলভ করা, প্রতি সপ্তাহে আগারওয়াল এর ম্যাথ থেকে কমপক্ষে দুই চ্যাপ্টার ম্যাথ শেষ করে ফেলা এবং প্রতিদিন কমপক্ষে ২ ঘন্টা বাংলা/ইংরেজিতে দেয়া। প্রশ্ন সলভ করতে গিয়ে যেগুলো বুঝতে সমস্যা হতো, সেটা গ্রুপে সার্চ দিয়ে বের করে নিতাম। প্রিলি প্রশ্ন সলভ করতে প্রথমদিকে ২/৩ ঘন্টাও লেগে যেত। কিন্তু হতাশ হতামনা। যেহেতু সবাই পারে, আমিও পারব। প্র‍্যাকটিস চালিয়ে যেতাম। এবং নিজের প্রগরেস নিজেই বুঝতে পারতাম। এতে উৎসাহটাও বেড়ে যেতো খুব।

আমি খুব বাংলা-ইংরেজী খুব সিলেকটিভলি পরতাম। এগুলা আমার জন্য কঠিন ছিল, এখান থেকে ৫০% মার্কস কিভাবে উঠানো যায় সেটাই আমার টার্গেট ছিল।
বাংলায় ক্লাস ৯-১০ এর গ্রামার বইটা ২ বার শুধু রিডিং পড়েছি। যেখানে গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে মার্ক করে রেখেছি। এরপর শুধু মার্ককরা অংশটাই পড়তাম। বাগধারা, এককথায় প্রকাশ, সমাস, সন্ধি, কারক, শব্দ, ণ-ত্ব ও ষ-ত্ব বিধান ইত্যাদি চ্যাপ্টার গুলো বেশি পড়তাম। একেবারেই মনে থাকত না, পরীক্ষার আগেও পড়তে হত।

ইংরেজিতে মোটামুটি বেসিক ছিল। ভোকাবুলারি মুখস্থ করার মত সাহস করতে পারিনি কখনো। পরীক্ষা দিতে গিয়ে দেখলাম 40-50% নাম্বার থেকে যাচ্ছে ইংরেজিতে। শুধু প্রিভিয়াস সলভ করেছি এবং 'Common Mistake' নামের একটা বই ছিল, সেটাই শুধু পরেছি। নেট থেকে কালেক্ট করে One Word Substitution পড়েছি কিছু।

কম্পিউটাররের জন্য ইজি কম্পিউটার বইটা দুইবার শেষ করেছি। এরপর এক্সামভেডা ওয়েবসাইট থেকে কম্পিউটার অংশ মুখস্থ করেছি। গ্রুপের ফাইল সেকশনে এক্সামভেডা কম্পিউটারের ফাইল পাওয়া যাবে।

GK-র জন্য রেগুলার যখন পড়তে ভাল লাগত না, পত্রিকা পড়তাম, কারেন্ট এফেয়ার্স এর প্রথমদিকের হাইলাইটসটা পড়তাম এবং সব চেয়ে যেটা ইম্পর্ট্যান্ট ছিল, গ্রুপে অনেক সাধারণ জ্ঞ্যান, সাম্প্রতিক জ্ঞ্যান পোস্ট হত সেগুলো পড়তাম এবং ফেসবুকেই সেভ পোস্ট দিয়ে রাখতাম। পরে যখন ফ্রী থাকতাম পড়তাম।

গণিত এর জন্য আগারওয়ালের ৯/১০ টা চ্যাপ্টার কম্পলিট করেছি। এক্সামভেডা থেকে ম্যাথ সলভ করেছি। গ্রুপের বিভিন্ন ম্যাথ সলভ করেছি। যদিও সবসময় কমেন্ট/পোস্ট করা হয়নি। নিজের খাতায় সলভ করতাম বেশি।

পরীক্ষার আগে ফ্যাকাল্টি বেজড প্রিপারেশন নিতাম। প্রিভিয়াস ম্যাথ, বাংলা, এবং কম্পিউটার অনেক কমন পেয়েছি বিভিন্ন পরীক্ষায়।
বাসা থেকে বের হলে অনেকে অনেক কিছু বলবে তাই বের হতামনা। সারাদিন ঘরে বসে হয় পড়তাম নাহয় ঘুমাতাম নয়তো ফেসবুকে গ্রুপে সময় দিতাম। মাঝেমাঝে টুকটাক ভাল মুভি দেখতাম।
**এর মধ্যে পিকেবির দুইটা প্রিলি দিলাম। প্রথম পরীক্ষায় গণিত দিয়ে শুরু করলাম। ফলে অনেক প্রশ্ন আমি দেখতেই পারিনি। পরের পরীক্ষা তুলিনা মূলক ভাল হল। ম্যাথ শেষে দিয়েছি। তারপরও শেষের দিকে সময় শর্ট পরে গেল। বেশ কিছু সহজ অংক করতে পারিনি।

ফলাফল দুইটাতেই প্রিলি ফেইল।

**এবার দিলাম রূপালি অফিসার (৭৩৬ পোস্ট-২০১৭), আর্টস ফ্যাকাল্টি পরীক্ষা নিয়েছিল। ম্যাথ সবগুলোই প্রিভিয়াস থেকে আসছিল। উত্তর মুখস্থ হয়ে গিয়েছিল প্র‍্যাকটিস করতে করতে। মোটামুটি ৪৭/৪৮ মিনিটে আমার সব দাগানো শেষ। ফলাফল, প্রিলি পাস করলাম।

খুব করে পড়লাম রিটেনের জন্য, টার্গেট ছিল মেরিটে যদি নাও আসে অন্তত যেন প্যানেলে জব হয়। কিন্তু ভাগ্য খারাপ। পরীক্ষার হলে টাইম ম্যানেজমেন্ট মোটেই ভালো ছিল না। নার্ভাসনেসের কারনে সবগুলো ম্যাথ রিপিট হওয়া সত্বেও ২টা ভুল করে বসলাম। রিটেন কোনরকম শেষ করলাম। তারপরও আশা করেছিলাম কোনরকম হয়তো টিকে যাব। ফলাফল রিটেন ফেইল।

**রূপালী সিনিয়র অফিসার (৪৪৩ পোস্ট, ২০১৬) আহসানুল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা নিয়েছিল। প্রিলি ভালই হল, সব প্রশ্ন দেখতে পেরেছিলাম ;)। ফলাফল প্রিলি পাশ করে গেলাম।

রিটেনের আগের দিন রূপালী অফিসারের রিটেনের রেজাল্ট দিল। কয়েকবার চেক করেও নিজের রোলটা পেলাম না। সেদিন আর কিছু পড়তে পারিনি। রাতে কিছু খাইনি। থেকে থেকে শুধু কান্না পাচ্ছিল।

পরদিন সকালে একদম ফাকা মাথায় প্রায় একঘন্টা আগে পরীক্ষার হলে চলে গেলাম। সবাই যখন নোট পড়ছিল আমি তখন নির্লিপ্ত। আমার হারানোর কিছুই নাই। পরীক্ষা দিলাম। ৭টা ম্যাথই প্রথম চেষ্টাতেই মিলে গেল। আর রিটেনেও ওভার অল দিয়ে তৃপ্তি পেলাম। শেষে ৫/৭ মিনিটের মত সময় ছিল। রিভিশন দিলাম। হল থেকে বের হয়েই বাসে উঠলাম, বিকালে আবার বাংলাদেশ ব্যাংক প্রিলি পরীক্ষা। বাসে উঠেই #Joy_Saha দাদার সমাধান পেলাম। আমার সবগুলো ফলই মিলে গেল আলহামদুলিল্লাহ।
ফলাফল রিটেন পাশ করলাম।
জীবনের প্রথম (এবং একমাত্র) ব্যাংক ভাইভায় মোটামুটি প্রিপেয়ার্ড হয়ে গেলাম। এক্সটার্নাল স্যার প্রথমেই দুইটা প্রশ্ন করলেন যেগুলো জীবনে শুনি নাই। নার্ভাস হয়ে গেলাম। এমতাবস্থায় বোর্ড চেয়ারম্যান (মনিরুজ্জামান স্যার) আমাকে বাচালেন। আমার চাকরি অভিজ্ঞতা নিয়ে কিছুক্ষণ আলাপ করে ছেড়ে দিলেন।
ফলাফলঃ আলহামদুলিল্লাহ টিকে গেলাম।

আমার প্রিপারেশনে এক্সট্রাওর্ডিনারি কিছুই ছিল না। সিনিয়র অফিসার পোস্টে কম্পিট করার কোন যোগ্যতাই আমার ছিল না। তারপরও ফাইনালি আমি টিকে গেলাম। আমি মনেকরি এটা আমার জন্য পুরোটাই লাক ছিল। পিউর লাক। আর আমার সামান্য চেষ্টাটা হয়ত শুধুমাত্র উছিলা ছিল। -
এ সময়ে আমি আমার পরিবার থেকে পুরো সাপোর্ট পেয়েছি। ঢাকায় না থেকে বরং বাড়িতে থেকেই পড়েছি পুরোটা সময়, এতেকরে মেস, বুয়া, বাজার বা টাকা-পয়সার কোন বাড়তি টেনশন কাজ করত না। সামাজিকতা যতটা সম্ভব এড়িয়ে গেছি। ফেইক ফেইসবুক আইডি ওপেন করলাম গ্রুপে প্রিপারেশন নেয়ার জন্য(এটাই ফেইক আইডি)। অরিজিনাল আইডি ব্যবহার করা বন্ধ করে দিলাম।

শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত প্রাণের এ গ্রুপটার অবদান ছিল।গত বছরের শেষ ছয়মাস জুড়ে আমার অবসর বলতে মূলত এই গ্রুপটাই ছিল। এই গ্রুপের এডমিন, মডারেটর এবং আরো অনেক পরোপকারী সদস্যদের কাছে আমি চির কৃতজ্ঞ। এতদিন তেমন কোন পোস্ট না করলেও, এখন থেকে গ্রুপের সাথেই থাকব ইনশাআল্লাহ।

এই ছিল আমার সংক্ষিপ্ত পথচলা। আরো চার বছরের মত সময় হাতে থাকলেও আর হয়তো কোন চাকরির পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করব না। জীবনটা অনেক ছোট, ১/২ বছর সময় এই ছোট্ট জীবনের অনেক বড় একটা অংশ। আর কোন সময় আমি হারাতে চাইনা। আর যা পেয়েছি তার জন্য হাজার শুকরিয়া আল্লাহর দরবারে। সবার জন্য শুভকামনা -

Mohammad Rahim (জাবির)
Senior Officer (Recommended)
Rupali Bank Limited


বিসিএস যদি সোনার হরিণ হয়, তাহলে ব্যাংক জব হলো রুপার হরিণ। এট লিস্ট আমাদের দেশের প্রেক্ষাপট বিবেচনা করলে দেখা যায়, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোতে জব পাওয়া হলো লাইভলিহুডের অন্যতম একটা সিকিউরিটি এসসিউর করা।
১২ টা প্রিলি, ১১ টা রিটেন এবং ৯ টা ভাইভা দিয়ে ১ টা জব পেয়েছি BSC এবং BB এর আন্ডারে। ভাস্ট একটা অভিজ্ঞতার আলোকেই ব্যাংকিং সেক্টরে জব পাওয়ার উপায় হিসেবে উত্তরসূরীদের কাছে কিছু তথ্য উপস্থাপন করি।
√ BCS preparation is the Mother of all preparation in job sector. পারসোনালি আমার মনে হয়েছে, বিসিএসের কমপ্যাক্ট একটা প্রিপারেশন থাকলে ব্যাংকে জব পাওয়াটা কম্পারেটিভলি ইজি হয়(পরে বিস্তারিত বলছি)।
√ আই বিলিভ, ৬ মাস ডেস্পারেটলি ব্যাংকের জব প্রিপারেশনে টাইম দিলে একটা ৯ম/১০ম গ্রেডের জব সিকিউরড হয়।
√ ব্যাংকের জব পাওয়ার জন্য মোস্ট ইম্পোর্ট্যান্ট পার্ট হলো "রিটেন" এ ভালো মার্ক ক্যারি করা। প্রিলি শুধু পাস করলেই হয়, ভাইভাতে ২৫ মার্ক। এজন্য যে রিটেন ভালো করবে সেই পাবে ব্যাংক জব।
√ যে কোন জব প্রিপারেশনের তিনটা সিঁড়ি আছে। এক এক করে উপরে উঠার চেষ্টা করাটাই বুদ্ধিমানের কাজ। আজ অটোপসি করি প্রথম সিঁড়ি- প্রিলির।
© প্রিলি প্রিপারেশন অব ব্যাংক জবঃ
ইউজুয়ালি ৮০ টা এমসিকিউ থাকে ১০০ মার্ক। কোয়েশ্চেন হয় বাংলা, ইংলিশ, জি কে (বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক), কম্পিউটার এবং ম্যাথ। Late me describe topic by topic.
১. বাংলাঃ
√ ৯-১০ এর ব্যাকরণ বইটা এর জন্য বাইবেল। সৌমিত্র শেখরের সাহিত্য জিজ্ঞাসা হতে প্রকৃতি-প্রত্যয়, শব্দ, সন্ধি, সমাস, সমার্থক শব্দ, বিপরীত শব্দ, বাগধারা, পরিভাষা, প্রবাদ বাক্য অবশ্যই পড়তে হবে।
√ MP3 বাংলা বই।
২. ইংলিশঃ
√ প্রচুর ভোক্যাব জানতে হবে। সাইফুরস, ওয়ার্ড স্মার্ট এবং জি আর ই ভোকাবুলারি বই এর মধ্যে যে কোন দুটা অবশ্য পাঠ্য।
√ মিরাকল/মাস্টার গ্রামার বই।
৩. জি কেঃ
√ MP3 বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি।
√ কারেন্ট এফেয়ার্স। মোর স্পেশিফিকলি, যে মাসে পরীক্ষা হয় তার ৬ মাস পূর্বের কারেন্ট এফেয়ার্স হতে আপডেট তথ্যের জন্য শুরুর দিকে যে ৩/৪ পেইজ আছে সেগুলো পড়ে নিলেই এনাফ।
৪. কম্পিউটারঃ
√ ভালো করতে চাইলে শুধুই Easy Computer. খুব ভালো করতে চাইলে আগারোয়ালের বই, বিভিন্ন ইন্ডিয়ান ওয়েবসাইট হতে এই পার্টটা পড়া যাইতে পারে। তবে আমি অতসব পড়াটাকে এক্সিযারেশান মনে করি। শুধু ইজি কম্পিউটার পড়লেই এনাফ মনে হয় আমার কাছে।
৫. ম্যাথঃ
√ বলা হয়ে থাকে, "ব্যাংক জব পাওয়ার আয়নাটার এপাশে বাকি সব সাবজেক্ট থাকলে অপরপাশের পুরোটা জুড়ে আছে গণিত।"
√ বেসিক স্ট্রং হতে হবে। এজন্য ৬-১০ এর বোর্ড বই শেষ করতে হবে।
√ Saifurs Bank Math, Agarwal এর বই করা যাইতে পারে। Advance Math নামে আরো একটা বই ভালো আছে, সেটাও পড়া যায়।
√ তবে আমি মনে করি প্রিলির জন্য উপরে মেনশন করা বইগুলা না পড়লেও চলে। যাদের বিসিএস ভালোমত প্রিপারেশন নেওয়া থাকে তারা শুধু MP3 ম্যাথ বইটা থেকে ম্যাথগুলা ইংলিশ ভার্শনে করে নিলেই হয়ে যায়।
N.B. ব্যাংকের প্রিলির পূর্বে বিভিন্ন মারফতে জানা যায় অমুক/তমুক ইন্সটিটিউশন উক্ত পরীক্ষাটি নিচ্ছে। তাই পরীক্ষার পূর্বে সেই পার্টিকিউলার ইন্সটিটিউশন কতৃক নেয়া বিগত পরীক্ষার সকল প্রশ্নের সমাধান অবশ্যই দেখে যেতে হবে। এটা অবশ্যই করতে হবে।
আজ যাচ্ছি, কিন্তু যাচ্ছি না।
অন্য কোন একদিন রিটেন ও ভাইভা প্রস্তুতি নিয়ে হাজির হবো। টিল দ্যান, স্টে সেইফ।
হ্যাপি জার্নি ❤
ভালোবাসায়,
শুভ্র দেব
জনতা ব্যাংক, সিনিয়র অফিসারে সুপারিশপ্রাপ্ত হবার সৌভাগ্য অর্জনকারী একজন।

বিসিএস প্রিলিমিনারির ২০০ নম্বরের সিলেবাস কে মোটাদাগে দুই ভাগে ভাগ করে পড়াশোনা করেছিলাম আমি। প্রথম ভাগে ১১০ থেকে ১২০ মার্ক রেখেছিলাম ক্লাসিক্যাল ভাগে, দ্বিতীয়ত ৮০-৯০ মার্ক ডাইনামিক পার্ট।
১২০ মার্কের ক্লাসিক্যাল ভাগে সাধারণত প্রশ্ন আসে বিগত বছরের বিসিএস এবং অন্যান্য চাকুরীর পরীক্ষার কোয়েশ্চেন ব্যাংক থেকে। লক্ষ্য করে দেখবেন যে সকল গাইড বই এবং জব সলুশন টাইপ বইতে প্রাথমিকভাবে ফোকাস করা হয় এই ক্লাসিক্যাল তথা রিপিটেটিভ প্রশ্ন গুলোকে। আপনি যদি যেকোন একসেট গাইড বই a2z পড়ে ফেলেন তাহলে এই পার্টের ১২০ মার্ক কমন আসার কথা। একারনেই সবাই বলে থাকেন যে গাইড বই যেকোন এক প্রকাশনীর টা পড়লেই চলে, যেহেতু কমবেশী সব গাইডের বিষয়বস্তু একই ধরণের।
দ্বিতীয় পার্ট এর ৮০ মার্ক আসে নতুন প্রশ্ন থেকে। যেমন ধরুন সাম্প্রতিক প্রশ্ন, ম্যাথের ক্ষেত্রে নতুন কিছু অংক, ইংরেজি সাহিত্য বাংলা সাহিত্যের অপরিচিত কিছু তথ্য। এই পার্টের প্রশ্নগুলোর উত্তর করতে হলে একজন প্রার্থীকে গতানুগতিক গাইডবই এর বাইরে পড়াশোনা করতে হবে। মৌলিক বই পড়তে হবে, অংকের সূত্র এবং ইংলিশ গ্রামারে দক্ষতা থাকা লাগবে, মূল্যবোধ সুশাসন এর ক্ষেত্রে সৃজনশীল জ্ঞানের প্রয়োগ করতে হবে।
একজন যোগ্য প্রার্থীর এই দুই অংশেই সমানভাবে দক্ষতা থাকা দরকার বলে আমি মনে করি। কারন গতানুগতিক ধারার প্রস্তুতি নিয়ে কেউ যদি ১২০ মার্ক কমনও পায় তাও সবগুলোর সঠিক উত্তর করা সম্ভব নয়। বাসা থেকে পড়ে আসা প্রশ্নের মাঝেও ৫-১০ টা ভুল হয়ে যাওয়া স্বাভাবিক পরীক্ষার হল এ।
বাঁকি কথা অরেকদিন হবে। শুভকামনা সবাইকে।

মোঃ ফয়সাল তানভীর
সহকারী পুলিশ সুপার
৩৮তম বিসিএস, মেধাক্রম ১০ম